ফ্রী ফায়ার এ কিভাবে ফ্রিতে ডায়মন্ড পাওয়া যায়?

ফ্রী ফায়ার এ কিভাবে ফ্রিতে ডায়মন্ড পাওয়া যায়?

ফ্রী ফায়ার এ কিভাবে ফ্রিতে ডায়মন্ড পাওয়া যায়


ফ্রী ফায়ার এ ফ্রিতে ডায়মন্ড নেওয়া আসলে অত সহজ নয়। এমন কোনো ওয়েবসাইট নেই, যেখান থেকে আপনি চাইলে নিজের ইচ্ছেমত ডায়মন্ড নিতে পারবেন তাও কোন রকম টাকা না দিয়ে। এমনকি ফ্রী ফায়ার ফ্রী ডায়মন্ড হ্যাক করার কোনো উপায় নেই। যদি কোনোভাবে অসাধু উপায় অবলম্বন করে করেন ডায়মন্ড টপ আপের ক্ষেত্রে। তবে সাথে সাথে আপনার অ্যাকাউন্ট ব্যান হয়ে যাবে। তাহলে ফ্রী ফায়ার ফ্রী ডায়মন্ড পাওয়ার উপায় কি? ফ্রী ফায়ার এ কিভাবে ফ্রিতে ডায়মন্ড পাওয়া যায়?


ফ্রী ফায়ার গেমে ফ্রিতে ডায়মন্ড পাওয়া কি সম্ভব?

নেইয়া সম্ভব। কিছু উপায় আছে। তবে তার জন্য আপনাকে পরিশ্রম করতে হবে। যেমন ধরুন, এমন অনেক এন্ড্রয়েড এপ্লিকেশন আছে। যেগুলো আপনাকে নিশ্চিন্তে, বিশ্বস্ততার সাথে ফ্রী ফায়ারে ফ্রী ডায়মন্ড দিতে পারবে। তবে তার জন্য তারা আপনাকে অনেক ধরনের শর্ত দিবে। 


তাদের সাথে কাজ করতে হবে। বিভিন্ন অ্যাডভার্টাইজমেন্ট ভিডিও দেখতে হবে। এবং সেখান থেকে  তারা যত আয় করবে, তার কিছু শতাংশ আপনাকে ডায়মন্ড টপ আপ করে দিবে। তাহলে বুঝতে পারলেন ফ্রী ডায়মন্ড কিভাবে ফ্রীতে পাবেন!



ফ্রী ফায়ার ফ্রিতে ডায়মন্ড এ কিভাবে পাওয়া যায়


MGamers: ফ্রী ফায়ার এ কিভাবে ফ্রিতে ডায়মন্ড পাওয়া যায়

ফ্রী ফায়ার ডায়মন্ড পাওয়ার একটি এপ্লিকেশন আছে। যেটা প্লে স্টোরে অ্যাভেলেবল। এবং এটি যথেষ্ট বিশ্বস্ত। যার নাম হলো MGamers।



অ্যাপ্লিকেশনটি কিভাবে ব্যবহার করবেন?

প্রথমত এটি গুগল প্লে স্টোর থেকে ডাউনলোড করতে হবে।

ডাউনলোড করে ওপেন করলে নিচের মত করে ইন্টারফেস আসবে। 


সেখান থেকে আপনাকে একাউন্ট পর্যন্ত যেতে হবে। সেখানে ফেসবুক, জিমেইল একাউন্টের মাধ্যমে লগইন করা যায়। এজন্য ফেসবুক এর মাধ্যমে লগইন করার অপশন এ ক্লিক করবেন। পরবর্তীতে একটি নতুন ইন্টারফেস আসবে। সেখানে সরাসরি ফেসবুক একাউন্ট এর ইমেইল এবং পাসওয়ার্ড দিয়ে লগইন করতে পারেন। 


তাঁদের প্রাইভেসিতে সুন্দর করে বলা আছে যে, তারা সে সকল পাসওয়ার্ড এবং জিমেইল কারো কাছে প্রদান করে না। কাজেই এটি সিকিউর।



কিভাবে উপার্জন হবেঃ

এখানে লগইন করে নেওয়ার পরবর্তীতে আপনাকে 100 কয়েন দেয়া হবে। আপনি এখানে ভিডিও দেখে, সার্ভে পূরণ করে এবং বিভিন্ন টাস্ক পুরন করে প্রতি এক সপ্তাহ পর পর লাকি স্টিকার গেম খেলে উপার্জন করতে পারবেন। উল্লেখ্য যে, এখানে লাকি ক্যাশ নামক ফিচারে একসাথে 10 হাজার কয়েন পর্যন্ত উপার্জন করা সম্ভব। এখানে প্রতিটি সার্ভে কিংবা জরিপ পূরণ করলে আপনাকে এক হাজার কয়েন দেয়া হবে। 


এছাড়া আপনাকে পাঁচ থেকে দশ পয়েন্ট করে দেয়া হবে ভিডিও এড দেখলে। এটি যথেষ্ট পরিশ্রম এবং ব্যয়বহুল। এবং বেশি এমবি খরচ করে। আপনি যে ডায়মন্ড পাবেন সেটা এমবি খরচ এর কাছাকাছিও আসবে না।


কাজেই যাদের ঘরে ওয়াইফাই আছে, তারা সেখানে কাজ করে ছোটখাটো ডায়মন্ড টপ আপ নিতে পারেন। 



Google Opinion Rewards: সার্ভে করে গুগল থেকে আয়।

এবার আসি একটি বিশ্বস্ত উপায় সেটি গুগোল অপিনিয়ন রিওয়ার্ড ব্যবহার করে।

আমরা সবাই গুগোল অপিনিয়ন রিওয়ার্ড অ্যাপ্লিকেশন এর সম্বন্ধে জানি। এখানে আপনি জিমেইল অ্যাকাউন্টে সাইন ইন করতে পারবেন। সাইন ইন করা হয়ে গেলে সেখান থেকে বিভিন্ন জরিপ পূরণ করতে পারবেন। আপনার লোকেশন কোথায়, সেটি গুগলকে সব সময় জানাবেন। অর্থাৎ সব সময় জিপিএস কিংবা লোকেশন অন রাখবেন। 


যত বেশি আপনি ইন্টারনেট কানেকশন ব্যাবহার করবেন, গুগোল অপিনিয়ন রেওয়ার্ড থেকে সার্ভে আসার পরিমাণ তত বেশি হবে। এখানে ছোটখাটো সার্ভে করে 10 সেন্ট থেকে শুরু করে সর্বোচ্চ 5 ডলার পর্যন্ত উপার্জন করা যায়। এবং আমি নিজেই মাত্র একটি ছোট সার্ভে করে 1 ডলার পেয়েছি। সেটি আপনার গুগল প্লে স্টোরে গুগল প্লে ব্যালেন্সে হিসেবে যুক্ত হয়ে যাবে। সেখান থেকে সরাসরি ফ্রি ফায়ার গেমে ডায়মন্ড নিতে পারবেন। 

এখানে প্রায় দুই থেকে তিন সপ্তাহ পরপর সার্ভে দেয়া হয়। এবং সেখান থেকে কিছু কিছু ডলার আসে। সেটি আবার ডায়মন্ড টপ আপ করতে ব্যবহার করা যায়।


গ্যারেনা ফ্রী ফায়ার আসলে বহুৎ জনপ্রিয় একটি গেম। এখানে গান স্কিন, কালেকশন প্যাক, রেয়ার আইটেম, ইভেন্ট থেকে জিনিসপত্র নিতে ডায়মন্ড টপ আপ করতে হয়। ডায়মন্ড ব্যবহার করতে হয়। এ জন্য প্রতিনিয়ত ইউজাররা কমবেশি ডায়মন্ড টপ আপ করে। এবং সেগুলো ব্যবহার করে। ফ্রী ফায়ারে ফ্রী ডায়মন্ড কিভাবে পাব সম্পুর্ণ পড়ুন।


আপনি জেনে খুশি হবেন গারিনা ফ্রী ফায়ার নিজের কমিউনিটির মাঝে বেশ ভালো একটি সুবিধা দিচ্ছে। ফ্রিতে ডায়মন্ড নেয়ার জন্য সুবিধা দিচ্ছে।

পড়ুনঃ গেম খেলে টাকা আয় করুন বিকাশে।


ফ্রী ফায়ারের এডভান্স সার্ভারে কাজ করে ফ্রী ডায়মন্ডঃ

গারিনার নিজস্ব গেম ডেভলপাররা একটি অসাধারণ সুবিধা নিয়ে এসেছে। ফ্রী ফায়ার কমিউনিটির জন্য। তারা তাদের গেম কমিউনিটিতে বিভিন্ন প্রোগ্রাম সম্বন্ধে, সমস্যা সম্বন্ধে ও বিভিন্ন বাগ(Bug) তাদেরকে রিপোর্ট করে দিলে তার বিনিময়ে ফ্রী ডায়মন্ড দেয়া হবে। আপনারা সবাই জানেন, ফ্রী ফায়ারে অ্যাডভান্স সার্ভার আছে। সে এডভান্স সার্ভারে এখনো কাজ চলছে। যখন অ্যাডভান্স সার্ভার কাজ শেষ হয়ে যাবে, সাথে সাথে ফ্রী ফায়ার পিসি ভার্শন আসবে। 


একইভাবে ফ্রী ফায়ার অনেক বেশি আপডেট হয়ে যাবে। গ্রাফিক্স এর ক্ষেত্রে মারাত্মক চেঞ্জ আসবে। এডভান্স সার্ভার নিয়ে এখনও ডেভলপাররা কাজ করছে। এবং তা ক্রমাগত চলবে। 


সেই সুবিধা অনুযায়ী যে কেউ ফ্রী ডায়মন্ড নিতে পারবে। শুধুমাত্র সার্ভারের বিভিন্ন সমস্যা বা সেগুলো রিপোর্ট করার মাধ্যমে। আপনি যদি একটি নরমাল বাগ তাদেরকে রিপোর্ট করে জানিয়ে দেন যে, গেইমের এ জায়গায় গেলে এই ধরনের সমস্যা হয়, তবে তারা কনফার্ম হয়ে সাথে সাথে আপনার একাউন্টে ফ্রী ডায়মন্ড টপ আপ দিবে। এডভান্স সার্ভারে যেতে এখানে ক্লিক করুন।


পড়ুনঃ

ফ্রী ফায়ার ডায়মন্ড কিভাবে কিনবো?



রিপোর্ট কোথায় ও কিভাবে করবেন?

তার জন্য আমি বলে রাখি, প্রথমে ফ্রী ফায়ার এর অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে যান। সেখানে নিজের ফেসবুক অ্যাকাউন্ট ব্যবহার করে সাইন ইন করে নিন। ওই ফেসবুক অ্যাকাউন্টটি ব্যবহার করবেন যেখানে আপনার ফ্রি ফায়ার একাউন্টে লিঙ্ক করা আছে।


যে সকল ডিটেলস তথ্য সেখানে দিতে হবে। যেমনঃ আপনার নাম, মোবাইল নম্বর, ই-মেইল এড্রেস দিয়ে সরাসরি একটি অ্যাকাউন্ট তৈরি করতে পারবেন।

অ্যাডভান্স সার্ভারে আবার একেবারে ও একাধারে একের পর এক রিপোর্ট দিলে হবেনা। আপনাকে কয়েকদিন পর পর একটি বাগ শেয়ার করতে হবে, এবং তার বিনিময়ে আপনি ফ্রী ডায়মন্ড পাবেন।


এছাড়া গেমের বিভিন্ন পারফরম্যান্স টেস্ট করে সেগুলো সম্পর্কে তথ্য কিংবা রিপোর্ট দেয়ার মাধ্যমে ফ্রি ডায়মন্ড নেওয়া যাবে। এটি খুবই সহজ।

একবার অ্যাকাউন্ট তৈরি হয়ে গেলে ফ্রি ফায়ারে সহজে ডায়মন্ড নিতে পারবেন।


পুরো গেম জুড়ে যে সকল বাগ আছে সেগুলো আগে থেকেই যাচাই করে নিন। সেগুলো নিয়ে একটি রিপোর্ট লিখুন। এবং ফ্রী ফায়ার অফিশিয়াল ওয়েবসাইট ব্যবহার করে তাদেরকে জানান। এবং তার বিনিময়ে 3000 ডায়মন্ড অর্জন করে নিতে পারবেন।


স্প্যাম থেকে দূরে থাকুন!

তার আগে বলে রাখি, যে সকল ওয়েবসাইট আপনার কাছে ক্লেইম করবে যে তারা ফ্রিতে ডায়মন্ড টপ আপ করে দিতে পারবে। এছাড়া বিভিন্ন পূর্ববর্তী অথবা আগে সিজনে দেয়া হয়েছে সেগুলো সরাসরি রিডিম করতে পারবে, তখন বুঝে নিবেন যে সাইটটি আসলে ফেক। ফ্রী ফায়ারে ফ্রী ডায়মন্ড কিভাবে পাব এ ব্যাপারে স্প্যাম সাইট গুলো আপনাকে লোভ দেখাবে।


সে ওয়েবসাইটে গিয়ে নিজের ফ্রি ফায়ারের ফেসবুক একাউন্ট ও আইডি তথ্য দিয়ে প্রতারণার শিকার হবেন না। এবং সেখানে আপনার আইডি চুরি করে নিয়ে যেতে পারে। কাজেই সেগুলো থেকে দূরে থাকুন। কোন ধরনের অথরিটি কিংবা লিংক নেই, এরকম ওয়েবসাইটে যাবেন না। এবং সেখান থেকে কোন তথ্য নিবেন না।

আরও পড়ুনঃ 




গুগল প্লে পয়েন্ট এর ব্যবহার করে ফ্রী ফায়ার ফ্রী ডায়মন্ড নিন।

বর্তমানে গুগল প্লে পয়েন্ট ব্যবহারে ফ্রী ফায়ার ফ্রী ডায়মন্ড ডায়মন্ড  অনেক বেশী জনপ্রিয় হয়েছে। 2019 থেকে 2020 এ সময়ে গুগল প্লে পয়েন্টে ব্যবহারে বেশি বেশি ডায়মন্ড টপ আপ করা যেত। এখন প্রশ্ন হতে পারে যে গুগল প্লে পয়েন্ট আসলে কি? 


প্লে পয়েন্ট হলো আমেরিকা, কানাডা সার্ভারের গুগল প্লে স্টোর অ্যাপ্লিকেশনের একটি বিশেষ ফিচার। অর্থাৎ সুবিধা। যেমন ধরুন, বাংলাদেশ সার্ভারে প্লে স্টোর অ্যাপ্লিকেশানটি আমরা সবাই চিনি। সেখান থেকেই সাধারণত গেম, এপ্লিকেশন ইন্সটল করা যায়। পাশাপাশি প্লে ব্যালেন্স রিডিম করে কেনা -কাটাও করা যায়। কিন্তু কানাডা, আমেরিকান সার্ভারের প্লে স্টোরে একটু ভিন্ন ফিচার আছে। 

অর্থাৎ কয়েকদিন পরপরই আপনাকে প্লে পয়েন্ট দেয়া হবে। একটি নির্দিষ্ট এপ্লিকেশন ইন্সটল করলে, এপ্লিকেশনটি ইন্সটলও করতে হয় না। শুধুমাত্র অ্যাপ্লিকেশন ইনস্টল অপশনে ক্লিক করে সাথে সাথে ক্যানসেল অপশনে ক্লিক করলেও প্লে পয়েন্ট পেয়ে যাবেন। 



গুগল প্লে পয়েন্ট কিভাবে ব্যবহার করা হয়?

প্লে পয়েন্ট  ব্যবহার করে গুগল প্লে ব্যালান্স আবার কখনো বিভিন্ন এপের জন্য ব্যালেন্স ক্রয় করা হয়। যেমন ধরুন, ফ্রী ফায়ারের জন্য 5 ডলার ব্যালেন্স ক্রয় করতে পারবেন প্লে পয়েন্ট ব্যবহার করে। এবং সেই পাঁচ ডলার শুধুমাত্র ফ্রী ফায়ার এপ্লিকেশনে ডায়মন্ড ও অন্যান্য সকল কিছু পারসেজ করতে ব্যবহার করা যাবে।


এছাড়া গুগল প্লে পয়েন্ট 100 টি প্লে পয়েন্ট জমা হলে, সেটি ব্যবহার করে 1 ডলার প্লে ব্যালেন্স ক্রয় করা যাবে। 1 ডলার ব্যালেন্স দিয়ে আমরা সবাই জানি যে 100 এর উপরে ডায়মন্ড পাব। এমনকি একটি 90 টাকার এয়ারড্রপ ক্রয় করা সম্ভব ১ ডলার দিয়ে। এছাড়া যারা গুগল প্লে পয়েন্ট ব্যবহার করছে, তারা প্রতিনিয়ত নতুন নতুন অফার ও বোনাস পায়। যেমন আমার নিজস্ব প্রয়োজনে আমি প্লে পয়েন্ট ব্যবহার করছি। সেখানে প্রায় 1 থেকে 2 ডলার বোনাস পাই। ফ্রী ফায়ারে ফ্রী ডায়মন্ড কিভাবে পাব সম্পুর্ণ জানুন।


এখন প্রশ্ন হলো, 

কিভাবে প্লে স্টোরে গুগল প্লে পয়েন্ট আনবো?

গুগল প্লে পয়েন্ট আপনি স্বভাবতই আমাদের বাংলাদেশ সার্ভারের প্লে স্টোর অ্যাপ্লিকেশনের জন্য পাবেন না। এটি পাওয়া সম্ভব একমাত্র আমেরিকা এবং কানাডার সার্ভারে। এখন যদি একটি জিমেইল অ্যাকাউন্ট আপনি আমেরিকান সার্ভারে তৈরি করে নিতে পারেন, তবে ব্যাপারটি সহজ হয়ে যায়। সে জিমেইল অ্যাকাউন্ট দিয়ে যখনই প্লে স্টোরে সাইন ইন করবেন, সাথে সাথেই আপনার প্লে স্টোর অ্যাপ্লিকেশানটি আমেরিকান সাভারের মতো হয়ে যাবে। সেখানে একটি নতুন অপশন পাবেন। যার নাম হলো প্লে পয়েন্ট।


এ অপশনে ক্লিক করলে এবং প্রতিনিয়ত সেখান থেকে পয়েন্ট পাওয়া যাবে। প্লে পয়েন্টগুলো জমাবেন। যখনই 100 অথবা 200 প্লে পয়েন্ট হয়ে যাবে, সাথে সাথে 1 থেকে 2 ডলার রিডিম করে নিবেন।



প্লে পয়েন্ট এর কোন জায়গা থেকে বেশি বেশি পয়েন্ট পাবেন?

নিচের ছবিটির দিকে তাকান। সেখানে দেয়া আছে একটি এপ্লিকেশন ইন্সটল করলেই 5 পয়েন্ট দেয়া হবে। সেখানে গিয়ে মূলত প্লে পয়েন্ট নেয়া হয়।


আমাকে পয়েন্টগুলোকে প্লে স্টোরে রিডিম করার অপশন নিচে দেখুনঃ

Naimul Islam

নাইমুল ইসলাম Expert Bangladesh এর Founder এবং Owner। সে অবসর সময়ে ব্লগিং ও লেখালেখি করতে ভালোবাসে। একইভাবে অনলাইনে নতুন কিছু শেখা তার প্রধান শখ।

6 Comments

কমেন্ট করার মিনতি করছি। আমরা আপনার কমেন্টকে যথেস্ট মূল্য প্রদান করি। এটি আমাদের সার্ভিসের অংশ।

তবে কোনো ওয়েবসাইট লিংক প্রকাশ না করার অনুরোধ রইল।

  1. Replies
    1. আমরা ফ্রিতে ডায়মন্ড পাওয়ার উপায় বলে দিতে পারি। বাকি কাজ আপনাকেই করতে হবে। তাছাড়া কাউকে ডায়মন্ড দেয়ার মত সক্ষমতা আমার নেই।

      Delete
  2. 1679709930 plc give me diamond.. Plc help me...

    ReplyDelete
Previous Post Next Post