এসির দাম ২০২১| বাংলাদেশে ভালো রেঞ্জের মধ্যে শীর্ষে থাকা ৫টি এসির রিভিউ


বাংলাদেশে ভালো রেঞ্জের মধ্যে শীর্ষে থাকা পাঁচটি এসির দাম ২০২১ ও রিভিউ :



                   এসির দাম ২০২১ বাংলাদেশ


বাংলাদেশে এসি ক্রয় করতে গিয়ে এসির দাম ২০২১ নিয়ে অনেকটাই কনফিউশনে পড়তে হয়। তাই যেকোনো এসি প্রোডাক্ট সম্বন্ধে নিজে জানতে হয়। কোন কোম্পানির কিংবা মডেলের এসি বেশিদিন টিকবে এবং ভালো পারফর্মেন্স প্রদান করবে তা আমরা এখানে জানবো।

কোন ধরনের এয়ার কন্ডিশনার আমাদের ক্রয় করা উচিত?
উইন্ডো এসি নাকি
স্প্লিট এসি?


তাছাড়াও আমাদেরকে কি ইনভার্টার ধরনের এসি নাকি নন ইনভার্টার এসি ক্রয় করা উচিত? এরকম অনেক কনফিউসড করা প্রশ্ন অগণিত রয়েছে। এসবকিছুর সমাধান আমরা পরবর্তীতে জানবো।


এসি ক্রয় করা নিয়ে গ্রাহকের কনফিউশান দেখে ভাবলাম এ নিয়ে একটি ব্লগ তৈরি করা যাক। তো আজকের ব্লগে স্প্লিট টাইপের ইনভার্টার এসি নিয়ে লেখালেখি করবো। এবং শেষে ২টি নন-ইনভার্টার এসি রিভিউ করবো।


আজকের ব্লগের পাঁচটি স্প্লিট টাইপের এসি পণ্যের রিভিউ করব। এদের ক্রয়মূল্যের রেঞ্জ মোটামুটি ৮৫ হাজার টাকা থেকে শুরু করে এক লক্ষ টাকার মধ্যে উঠা-নামা করবে। তো এসি প্রোডাক্ট যদি ক্রয় করতে চান, তবে আপনারা সম্পূর্ণ ব্লগ পড়তে পারেন।


5. Mitsubishi SRK-18YNS| অসাধারণ ডিজাইন ও ফাস্ট কুলিং মুড।


Mitsubishi এই কোম্পানিটি মূলত কমার্সিয়াল গাড়ির জন্য বেশ বিখ্যাত। কিন্তু তাই বলে যে কোম্পানিতে ভালো এসি প্রোডাক্ট নেই, তা কিন্তু না! এদের তৈরি এসি পণ্যগুলা খুবই চমৎকার। নির্মান শৈলীও বেশ ভালো।


Mitsubishi ACs প্রোডাক্ট গুলো যেগুলো আমরা বর্তমানে বাংলাদেশে মজুদ আছে বলছি, সেগুলো তৈরি হয় থাইল্যান্ডে। এবং Esquire Electronics অফিশিয়ালি তাদের সাথে পার্টনারশিপ ভাগাভাগিতে আছে।


সুযোগ-সুবিধাঃ

  • Mitsubishi কোম্পনির 1.5 টনের এসি প্রোডাক্ট গুলো খুবই চমৎকার। এদের ডিজাইনও অনুপম নিদর্শনের হয়।
  • এ কোম্পানির এসি প্রোডাক্ট বাড়িতে এবং কমের্সিয়ালি/ইন্ডাস্ট্রিয়ালি ব্যবহার করার জন্য বেশ উপযোগী।


কার্যক্ষমতাঃ

  • AC এসি প্রোডাক্ট গুলোতে দ্রুত ঠান্ডা করার ক্যাপাসিটি আছে। অর্থাৎ ফাস্ট কুলিং ক্যাপাসিটি রয়েছে।
  • এদের ডিউরেবিলিটি বেশি। মানে এসি পণ্যগূলো বেশি দিন টিকে।
  • এই এসি প্রোডাক্ট গুলো খুব দ্রুত সময়ে পুরো ঘর শীতল করে দিতে পারে। সেখানে যতই মানুষ থাকুক না কেন।

ওয়ারেন্টিঃ

  • কমপ্রেসর ওয়ারেন্টি আছে 3 বছর মেয়াদি।
  • এসির বিভিন্ন পার্ট গুলোর মেয়াদ হচ্ছে দুই বছর। দুই বছরের মধ্যে যদি কোনো পার্ট নস্ট হয়ে যায়, তাহলে রিপ্লেস করিয়ে নিতে পারবেন।
  • তাদের কোম্পানির সার্ভিসিং মেয়াদ আছে ৩ বছর।

বাজারদামঃ

  • এ মডেলের এসি পণ্যের বর্তমান বাজার দাম হচ্ছে ১,০৩,৫০০৳। ( ১ লক্ষ ৩ হাজার ৫০০ টাকা)

আমি শুরুতেই বলেছিলাম, এসির প্রোডাক্টগুলা বেশ দামী হবে। এবং কম দামী ৫০,০০০ এর ভিতরে ভালো এসি প্রোডাক্ট সম্বন্ধে জানতে চাইলে কমেন্ট করুন। আমরা আপনাদের মতামতকে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে লেখালেখি করি। কারণ এই লেখালেখির উদ্দেশ্য সাধন হয় আপনাদের মধ্য দিয়েই।


4. Daikin কোম্পানির প্রেমিয়াম স্প্লিট ইনভার্টার  এসি JTKJ18TV16UD                            

শুরু থেকেই বাংলাদেশে জাপানীজ কোম্পানীগুলো বেশ ভালো র‍্যাংকে আছে। সেটা বলেন, মোবাইল কোম্পানি থেকে শুরু করে এলইডি কোম্পানি, ফ্রিজ কোম্পানি, এমনকি এসি কোম্পানিতেও তাদের সুনাম বহুগুণে বেড়েছে! তারা বেশ ভালো পারফর্মেন্স করা এসি তৈরি করে থাকে।




Daikin AC পণ্যগুলো মূলত জাপানে বেশিরভাগক্ষেত্রে ইমপোর্ট করা থাকে। অর্থাৎ তাদের পণ্যের বেশিরভাগই জাপানে অ্যাভেলেবল থাকে। কিছুদিন আগেও এ কোম্পানির এসি জাপান থেকে অর্ডার করা লাগতো। বর্তমানে, সম্প্রতী এ বছরে ট্রান্সকম ডিজিটাল (Transcom Digital) এর সহায়তায় এ কোম্পানির এসিগুলো সরাসরি বাংলাদেশি মার্কেট থেকে ক্রয় করা যায়।

সুযোগ- সুবিধাঃ

১) The AC circulates the air: তো চলুন, এই এসি সম্বন্ধে কিছু মজার ব্যাপার জানা যাক। আমরা সচরাচর এসি সম্বন্ধে যতটুকু জানি যে, এসি চালু করলে এর বাতাস প্রথমে সরাসরি মুখে আবার মাথায় এসে পড়ে। কোনোভাবে আমাদের মুখমন্ডল, মাথা দ্রুত ঠান্ডা হয়ে যায়। শরীর কিন্তু তখনও ঠান্ডা হয়নি। 

অথবা যখন, আমরা শীতলতা অনুভব করছি না ঠিক তার আগেই কিন্তু মাথা কিংবা মুখমন্ডলে খুব দ্রুতসময়ে ঠান্ডা অনুভূত হয়। যেটা আসলেই কারো কারো কাছে অস্বস্তিদায়ক। কিন্তু এ প্রযুক্তির এসি গুলোতে যেটা হয় সেটা হচ্ছে এসির বাতাস প্রথমে মাথায় পড়ে না। বরং ঘরের বিভিন্ন কর্ণারে বাতাস সঞ্চালিত হয়ে পুরো ঘরকে শীতল করে দেয়।


কার্যকারিতাঃ

  • এসব AC প্রোডাক্টগুলো মূলত 1.5 টন ক্যাপাসিটির হয়।
  • এটি ইনভার্টার প্রযুক্তির এসি।
  • এই এসি পণ্য গুলোর পাওয়ার চিল মুড (Power chill mode) সুইচ করা আছে। অর্থাৎ স্বল্প সময়ের মধ্যে পুরো একটি রুম অথবা কোনো জায়গাকে শীতল করে দিতে পারে।
  • আরও আছে ফাস্ট কুলিং মোড।

বাজারদামঃ

  • এসির দাম ২০২১ এর হিসেবে প্রায় 97 হাজার 200 টাকার মতো।

ওয়ারেন্টিঃ

  • এদের প্রায় তিন বছরের ওয়ারেন্টি আছে। ৩ বছরের মধ্যে এসিতে কোনো গন্ডগোল দেখালে ফিরিয়ে নতুন এসি আনতে পারবেন।

পড়ুনঃ টাকা ইনকাম করার এপ ২০২১


3. স্যামসাং ৮ মেরুর ইনভার্টার এসি (Samsung eight pole inverter AC AR18MVFHGWKZ)।      

সুযোগ- সুবিধাঃ

১) ঘরোয়া ব্যবহারঃ ঘরে ব্যবহার করার জন্য স্যামসাং এর এই এসি প্রোডাক্টগুলো খুবই ভালো।

২) গোলাকার ইঞ্জিনঃ সাথে eight-pole ইনভার্টার প্রযুক্তি। থাকার কারণে এদের এসি মোটর মূলত গোলাকার হয়।

৩) বিদুৎ সাশ্রয়ীঃ অন্যান্য এয়ার কন্ডিশনারের তুলনায় এই প্রোডাক্টগুলো খুবই কম বিদ্যুৎ খরচ করে। অর্থাৎ বিদ্যুতের অপচয় অনেকাংশে কমে যায়। এসির দাম ২০২১ সম্পুর্ণ জানুন।


ফাস্ট কুলিং মুড এবং স্বল্প বিদুৎ খরচঃ


এই এসি আশানুরূপভাবে দ্রুতসময়ে ঘরকে শীতল করে। ১৬০০ ওয়াট বিদ্যুৎ খরচ করে একদম সর্বোচ্চ কুলিং সেটিংয়ে পৌঁছাতে। সর্বোচ্চ কুলিং সেটিং দিলে 1600 ওয়াট বিদ্যুৎ খরচ করবে আরকি। অন্যান্য এসি প্রোডাক্টের তুলনায় এরা কম বিদ্যুৎ খরচ করে।
 

২ স্টেপ কুলিং মুডঃ এই এসিতে 2-স্টেপ কুলিং মুড সেট করা আছে। অর্থাৎ এটি সম্পূর্ণ একটি ঘরকে শীতল করে দুটি ধাপে।


২ স্টেপ কুলিং মুড কিভাবে কাজ করে?


প্রথমত, ঘরের পুরো বায়ুকে কুলিং ইফেক্ট এর মাধ্যমে শীতল করে দেয়। পরবর্তীতে একটি স্বস্তিদায়ক তাপমাত্রা আনার জন্য আবার টেম্পারেচার নিয়ন্ত্রণ করে। অটোমেটিক্যালি স্বস্তিদায়ক তাপমাত্রায় নিয়ে আসে।



যদি ঘরে অসাধারণ উষ্ণতা বিরাজ করে, তবে মুহূর্তের মধ্যেই ঘরটি শীতল করে দিবে। এবং কিছু সময়ের মধ্যে একটি স্বস্তিদায়ক তাপমাত্রায় পৌঁছে দিবে। যেখানে বেশি ঠান্ডা বিরাজ করবে না।

ওয়ারেন্টিঃ

ভাই, এসি তো স্যামসাং প্রোডাক্ট। ওয়ারেন্টির কথা বাদই দিলাম। ওয়ারেন্টি দিবে ভালো এইটা মনে রাখবেন। তাদের কম্প্রেসর ওয়ারেন্টি ৫ বছর। তাদের সার্ভিসিং খুব ভালো হয়।

এসির দাম ২০২১ঃ 

এ মডেলের এসির দাম বাংলাদেশ এর হিসেবে 87 হাজার 900 টাকা


2. General ASG-24ABC                  

একটা কথা আছে "Old is gold"। তেমনি General টিকে আছে তার গৌরবোজ্জ্বল অস্তিত্ব নিয়ে। এই মডেলের এসি বাংলাদেশে অফিসিয়ালি পাওয়া যায়। এই এসি প্রোডাক্ট অনেকটাই পুরনো মডেলের। ১৯৯৭ সালের দিকে এই মডেলের প্রথম ভার্সন লঞ্চ করা হয়। তখন এটি R22 refrigerant এবং এমেরিকা প্রস্তুত admiral compressor ব্যবহার করতো।

এটির দীর্ঘস্থায়ীত্বই এর জনপ্রিয়তা বহুগুণে বাড়িয়েছে। বিশেষ করে বাংলাদেশে।


সুযোগ-সুবিধাঃ

  • এই মডেলের এসি ব্যবহারে খুব ভালো সুবিধা আছে। যথেস্ট মানসম্মত পারফরমেন্স দেয়।
  • এ প্রোডাক্টের বেশি ব্যবহার হয় মূলত লোক সমাগম আছে এমন অফিসিয়াল জায়গায়।
  • Genearal ব্র‍্যান্ডের এসি গুলো বেশ দীর্ঘ স্থায়ী।

ওয়ারেন্টি

  • এর অফিসিয়াল ওয়ারেন্টি আছে ২ বছর।

বাজার দামঃ

  • Esquire electronics থেকে আপনি চাইলে এটি ক্রয় করতে পারেন।
  • ক্লাসিকাল মডেলের ১.৫ টনের এসির দাম বাংলাদেশে নিবে ১,১১,৫০০ টাকার মতো। এটি Inverter টেকনোলোজির আওতাধীন নয়। নন-ইনভার্টার প্রযুক্তি।


1. General ASGA-18FUTB

                           
General কোম্পানীর আরেকটি নন-ইনভার্টার এসি আমাদের লিস্টের শীর্ষ তালিকায়😍।


সুযোগ সুবিধা

  • দীর্ঘস্থায়ী হওয়ার পাশাপাশি বেশ ডিউরেবিলিটি-ও আছে। এই কোম্পানি এসির দুনিয়ায় বেশ জোরালো ব্র‍্যান্ড।
  • কমার্সিয়াল ও ঘর উভয়ক্ষেত্রে ব্যবহার করা যায়।

কার্যকারীতাঃ

  • এটি ২৫ মিটার পর্যন্ত বাতাসের প্রবাহ দিতে পারে।
  • অন্যান্য General AC মডেলের ন্যায় এরও একই ক্যাপাসেটি।
  • এ মডেলের এসি Reciprocating-Admiral কম্প্রেসর ব্যবহার করে। যেটি মার্কিন যুক্তরাস্ট্রে প্রস্তুত হয়।

জেনেরাল (ব্র‍্যান্ডের নাম এটি) এসির প্রোডাক্টগুলি সরাসরি থাইল্যান্ড থেকে ইম্পুর্ট করা হয়। Esquire Electronics তে বর্তমানে এই এসির মজুদ আছে। এসির দাম বাংলাদেশ ২০২১।


ওয়ারেন্টিঃ ২ বছর।


এসির দাম

এ মডেলের এসির দাম বাংলাদেশে হলো ১,০৬,৫০০ টাকা।

পরিশেষে,
বর্তমান বাজারদর সামনে রেখেই ক্রয়মূল্য ঠিক করা। বিভিন্ন সময় আংশিক হলেও ডিসকাউন্ট পাবেন। বাংলাদে্শি এসি প্রোডাক্টগুলোর ক্ষেত্রে বেশিরভাগ বৈদেশিক কোম্পানিগুলো স্থান দখল করে আছে। এদের এসি প্রোডাক্টগুলোর ব্যবহার মানসম্মত। পাশাপাশি বেশ দীর্ঘস্থায়ী ও ডিজাইনও বেশ চমৎকার। সবকিছু মাথায় রেখে আজকের এ রিভিউ লিখা।


ভালো লাগলে নিচের ফেসবুক অপশনে ক্লিক করে শেয়ার করুন। আমাদের ইউআরএলে প্রায়শ ভিজিট করবেন। আল্লাহ- হাফেজ। বাংলাদেশি এসির দাম ২০২১।


আরও পড়ুনঃ 

Naimul Islam

নাইমুল ইসলাম Expert Bangladesh এর Founder এবং Owner। সে অবসর সময়ে ব্লগিং ও লেখালেখি করতে ভালোবাসে। একইভাবে অনলাইনে নতুন কিছু শেখা তার প্রধান শখ।

Post a Comment

কমেন্ট করার মিনতি করছি। আমরা আপনার কমেন্টকে যথেস্ট মূল্য প্রদান করি। এটি আমাদের সার্ভিসের অংশ।

তবে কোনো ওয়েবসাইট লিংক প্রকাশ না করার অনুরোধ রইল।

Previous Post Next Post